প্রতিদিনের যে অভ্যাসগুলো আপনার চোখের মারাত্মক ক্ষতি করছে

0
Loading...

আপনি কি জানেন, আপনার অজান্তেই আপনার কিছু অভ্যাসের জন্যই আপনি আপনার চোখের ক্ষতি করছেন? ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এখনো পরিবর্তনের সুযোগ আছে। তাই আপনার যে দৈনন্দিন অভ্যাসগুলো চোখের ক্ষতি করছে সেগুলো জেনে নিন আজ।

১। কন্টাক্ট লেন্স
যখন আপনি খুবই অলস অনুভব করেন তখন মনে হতে পারে যে,  কন্টাক্ট লেন্স পরে একটু ঘুমিয়ে নিলে কি আর হবে। এটা ভাবা মোটেই ঠিক নয়। লেন্স কর্নিয়ার জন্য প্রয়োজনীয় অক্সিজেন, পুষ্টি উপাদান ও তৈলাক্ত উপাদান পৌছাতে বাঁধা দেয়। এর ফলে চোখ শুষ্ক হয়ে লাল হয়ে যায়।

২। কম্পিউটার
সারাদিন কম্পিউটারে বসে কাজ করে চোখ শুষ্ক ও ক্লান্ত হয়ে যায়। ভিট্রিওরেটিনাল সার্জারি এন্ড লেজার বিশেষজ্ঞ ডা. আশভিন বাফনা বলেন, আপনার কম্পিউটার স্ক্রিনটি আপনার চোখ থেকে ১৫-২০ ইঞ্চি দূরে রেখে কাজ করুন। প্রতি ২০ মিনিট পরপর আপনার চোখকে বিশ্রাম দিন এবং ২০ সেকেন্ডের জন্য ২০ ফুট দূরের কোন কিছুর দিকে তাকিয়ে থাকুন।

৩। চোখ কচলানো
চুলকালে চোখ কচলাতে ইচ্ছে করাটা স্বাভাবিক। কিন্তু এর ফলে আপনি শুধু আপনার যন্ত্রণাটাই বাড়াবেন। চোখ রগড়ালে আপনি হয়তো আপনার চোখে ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া প্রেরণ করবেন যা ইনফেকশন ঘটাতে পারে। তাছাড়া চোখ কচলালে চোখের চারপাশের পাতলা রক্তনালী গুলো ভেঙ্গে  যায়। যার ফলে চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে ও চোখ ফুলে যায়। যদি চোখে কোন কিছু পড়ার জন্য চোখ চুলকায় তাহলে চোখে ঠান্ডা পানির ছিটা দিন।

৪। অল্প আলোতে কাজ করা
অল্প আলোতে কাজ করলে যেমন- বই পড়া বা সেলাই করা বা মোবাইলে মেইল  চেক করার মত কাজ গুলো করলে চোখের উপর অনেক চাপ পরে যা চোখের জন্য মোটেই ভালো নয়।

৫। যাতায়াতের সময় বই পড়া
গাড়ি বা বাসে ভ্রমণের সময় বই বা ম্যাগাজিন পড়লে চোখকে ফোকাসের জন্য অনেক বেশি কাজ করতে হয়। এর ফলে চোখ দুর্বল হয়, মাথাব্যথা ও মাথা ঘুরানোর মত সমস্যা গুলো হতে পারে।

৬। সানগ্লাস
সূর্যের আলোর অতিবেগুনী রশ্মি চোখের ক্ষতি করতে পারে। যার ফলে চোখের সামনের অংশের সানবার্ন হতে পারে, ছানি পরতে পারে ও চোখের পাতার ক্যান্সারও হতে পারে। সানগ্লাস অতিবেগুনী রশ্মি থেকে আপনার চোখকে রক্ষা করে একশতভাগ এবং আপনার চোখকে সুস্থ রাখে।

৭। আইড্রপ
আপাতদৃষ্টিতে আইড্রপ নিরীহ মনে হলেও এর অপব্যবহারের ফলে চোখের ক্ষতি হতে  পারে। নির্দিষ্ট কোন সমস্যার জন্য নির্দিষ্ট উপাদান দিয়েই আইড্রপ তৈরি করা হয়। এদের কোনটি চোখের অ্যালার্জি সৃষ্টি করতে পারে আবার কোনটি ব্যবহারে চোখ লাল হয়ে যেতে পারে। তাই নিজে নিজে আইড্রপ ব্যবহার না করে চোখের ডাক্তারের পরামর্শ মত আইড্রপ ব্যবহার করুন।

৮। চোখের মেকআপ ব্রাশ
আপনার চোখের মেকআপের ব্রাশগুলো মাসে অন্তত একবার পরিষ্কার করুন। দীর্ঘদিন অপরিছন্ন থাকলে এই মেকআপ ব্রাশগুলোতে ব্যাকটেরিয়া স্তূপাকারে জমতে থাকে। যার ফলে ইনফেকশন হতে পারে, আজনি এবং কনজাংটিভাইটিস বা চোখ উঠার সমস্যা হতে পারে।

৯। কৃত্রিম পাপড়ি
কৃত্রিম পাপড়ি ব্যবহার না করাই ভালো। আইলেশ লাগালে আপনাকে দেখতে অনেক সুন্দর দেখাবে কিন্তু এর আঠালো অংশটি চোখের জন্য ক্ষতিকর। যদি একান্তই ব্যবহার করতে হয় তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেটি খুলে ফেলবেন।

১০। ধূমপান
অধূমপায়ীদের চেয়ে ধূমপায়ীদের অন্ধ হওয়ার সম্ভাবনা ৪ গুণ বেশি। অত্যন্ত বেদনাদায়ক সংবাদ তাই না? ধূমপান চোখের ছানি পরা, চোখ শুষ্ক হয়ে যাওয়া, ডায়াবেটিক রেটিনোপেথি ইত্যাদি রোগের সৃষ্টি করতে পারে। তাই যাদের ধূমপানের অভ্যাস আছে তাদের আজই ধূমপানের অভ্যাস ত্যাগ করার পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিৎ নয় কি?

বিঃ দ্রঃ প্রতিদিন মজার মজার রান্নাকরার অসাধারন সব রেসিপি এবং রুপ লাবণ্য টিপস আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে আমাদের দুটি পেজ লাইক দিন!

রান্নাকরার অসাধারন সব রেসিপি

মজার রেসিপি/ রুপ লাবণ্য

Share.
[X]